Posts

Showing posts from May, 2016

বালি চোরের দল

১ একটু এগিয়ে যেতেই কোমরে একটা চোট পেয়ে কাতরে উঠল ব্যাথায় । দু’চোখ জলে টই টম্বুর । কিন্তু তার কথা-কষ্ট কেইবা শোনে ! ভাগ্যিস কয়েকজন একটু দূরেই দাঁড়িয়ে ছিল । কিন্তু তাদের অবস্থা আরো খারাপ । ন্যাড়া গোছের যে , তার তো এমন আবস্থা যেন দেখে মনে হচ্ছে কতকাল খায় নি । গা দিয়ে খড়ি উঠছে । আর ঠিক তার পাশের জন , তার আবার পায়ে দগদগে ঘা । তবুও তারা কান্না দেখে চুপ করে থাকতে পারলো না । খুব কষ্টে হাওয়ায় ভর করে একসাথে কোনক্রমে বলে উঠল – “ ও বোন নদী ! লেগেছে তোমার ব্যাথা – মানুষগুলো দুষ্টু শোনে না কোন কথা । এই দেখ না কি করেছে মোদের হাল – কেটে নিয়েছে সব গাছেদের ডাল !” নদী তখন গাছ ভাইদের দিকে তাকিয়ে জল ভরা চোখে ফোঁপাতে ফোঁপাতে বলল – “ দিন-রাত বালি তুলে করছে চুরি – জল ফুরিয়ে গেছে কি করে যাব বাড়ী !” গাছেরা তাকিয়ে দেখলো তাদের নদী বোনের জল প্রায় শুকিয়ে গেছে । বালি চোরেরা এমন করে বালি খুঁড়েছে যে সাগর মায়ের বাড়ী পৌঁছান খুবই কঠিন হয়ে পরেছে । তখন সেই রোগা গাছ ন্যাড়া মাথা দুলিয়ে বলে উঠল – “ ও বোন তুমি আজ বড্ড ক্লান্ত , দিন খানেক বিশ্রাম নাও - বিহিত আমরা করে তবেই হব শান্ত ।” নদীও বুঝল । সেই যে কবে দূর পাহাড় বাবার কোল থেকে ঝাঁপিয়ে প…

আবার দেখা

Image
১ সরু গলিটায় তখনও সূর্যের আলোটা ভালভাবে এসে পরেনি । সূর্যের সাথে এমনি সম্পর্ক বহুবছর বজায় রেখে চলেছে  মিত্তির লেন । আধ পাকা গলিটায় দুটো মানুষ আড়াআড়ি ভাবে চলতে পারে আর মোটা মানুষ হলে একাই যেতে হয় । বৃষ্টি হলে সোনায় সোহাগা ! প্যান্ট , ধুতি ,শাড়ী আধ হাঁটু গুটিয়ে ছপ ছপ করে মিত্তির লেনের জমা জলে হাল্কা ঢেউ তুলে এখানকার মানুষদের এগিয়ে চলাটাই অভ্যাস । বলা যায় একপ্রকার অলিখিত রীতি । প্রথম প্রথম রাশিকার এই ঘিনঘিনে পরিবেশটা গা গুলিয়ে তুলত । কিন্তু অভ্যাস নামক মহামানবীর দাস দাসী আমরা সকলেই, তাই রাশিকাও প্রয়োজনে গায়ের ওড়নাটা নাকে চাপা দিয়ে দুর্গন্ধ এড়াতে সক্ষম হয়ে গেছে । বুকের খাঁজ স্পষ্ট ভাবে ছেলে বুড়ো আড়চোখে দেখতে দেখতে নতুনত্ব আর কিছু পায় না । হ্যাঁ, প্রমিতের কাছ থেকে হঠাৎ বেড়িয়ে আসার পর অনেকগুলো চোখ অবশ্যই উপর থেকে নীচ অবধি চেটে যেত । রাশিকা এই মিত্তির লেনের চটলা ওঠা দু’কামরার ঘরটি বেশ সস্তায় ভাড়ায় পেয়েছে মাস ছয়েক হল । অবশ্য এটি জোগাড় করে দিয়েছিল তারই অফিসের এক কলিগ । বেজায় চটে গেছিল সেদিন রাশিকা । -“ আর জায়গা পেলি না ! জানলা খুলতেই পাশের দেওয়াল , প্রাইভেসি নেই !” অরুণা হাঁসতে হাঁসতে জবাব দেয় , “ …